Posts Subscribe to This BlogComments

Follow Us

Tuesday, January 5, 2010

কলা



কলার আদিভূমি মালয়েশিয়া। ধারণা করা হয়, ৪ হাজার বছর আগে সেখানে কলাগাছ ছিল। পরবর্তীকালে কলার চাষ শুরু হয় ফিলিপাইন ও ভারতে। বিশ্বের সবার পছন্দের ফল কলা। বিভিন্ন দেশের মতো আমাদের দেশেও সারাবছর কলা জন্মে। আর দামের দিক থেকেও ফলটি অনেক সস্তা। কলা শরীরের প্রয়োজনীয় পটাশিয়ামের অন্যতম উৎস এবং খাদ্যমানের দিক থেকে অনেক সমৃদ্ধ। প্রতিটি কলা থেকে শক্তি পাওয়া যায় ৯০ কিলোক্যালোরি। এছাড়া প্রতিটি কলায় আছে কার্বোহাইড্রেট ২৩ গ্রাম, চিনি ১২ গ্রাম, ভিটামিন সি ১১ গ্রাম, আঁশ ৩ গ্রাম, পটাশিয়াম ৪৬৭.২৮ গ্রাম। এছাড়া আছে ভিটামিন বি সিক্স, ম্যাঙ্গানিজ, প্রোটিনসহ বিভিন্ন উপাদান। কলার খাদ্য উপাদান হাই বল্গাডপেসার রোধে সাহায্য করে এবং কমিয়ে দেয় যাবতীয় হৃদরোগের আশঙ্কা। এছাড়া আলসার এবং ডায়রিয়ার আশঙ্কা কমিয়ে দেয়। হাড়ের গঠন, চোখের দৃষ্টি এবং কিডনি ঠিক রাখতে কলার খাদ্য উপাদান বিশেষ ভূমিকা পালন করে


জংলি কলায় বীজ থাকলেও চাষ করা কলায় বীজ নেই, কারণ এদের বিজোড় সংখ্যক (সাধারণতঃ তিন) জিনোম গুণিতক (ploidy=3) মায়োসিস বিভাজনে বাধা দেয়।কলা গাছের কাণ্ড থাকেনা, পাতার গোড়া অভিযোজিত হয়ে ছদ্মকাণ্ডে পরিনত হয়েছে যা কাণ্ডের কাজ করে ।

Related Post



0 comments:

Post a Comment

Bangla Help

Sponsor