Posts Subscribe to This BlogComments

Follow Us

Monday, December 14, 2009

তুলসী

আমাদের এই উপমহাদেশে যারা আয়ুর্বেদ শাস্ত্র চর্চা করেন তাদের কাছে তুলসীর গুণাগুণকে নতুন করে ব্যাখ্যা করার প্রয়োজন নেই। তুলসীর সিদ্ধ পানি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। আর তুলসী কেবল শরীরকে নয় বরং শরীরের সাথে এটি বাতাসকেও দূষণমুক্ত করে।
তুলসী পাতার অনেক গুণ রযেছে৷ আয়ুর্বেদে তুলসীকে ভেষজের আখ্যা দেওয়া হয়৷ চলুন এই ভেষজের গুণগুলো জেনে নিই৷
* জ্বর হলে জলের মধ্যে তুলসী পাতা, গোল মরিচ এবং মিশ্রী মিশিয়ে ভাল করে সেদ্ধ করুন৷ অথবা তিনটে দ্রব্য মিশিয়ে বড়ি তৈরি করুন৷ দিনের মধ্যে তিন-চার বার ঐ বড়িটা জলের সঙ্গে খান৷ জ্বর খুব তাড়াতাড়ি সেরে যাবে৷
* কাশি যদি না কমে সেই ক্ষেত্রে তুলসী পাতা এবং আদা পিষে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান৷... এতে উপকার পাবেন৷
* পেট খারাপ হলে তুলসীর 10 টা পাতা সামান্য জিরের সঙ্গে পিষে 3-4 বার খান৷ পায়খানা একেবারে বন্ধ হয়ে যাবে৷
* মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দিনে 4-5 বার তুলসী পাতা চেবান৷
* ঘা যদি দ্রুত কমাতে চান তাহলে তুলসী পাতা এবং ফিটকিরি একসঙ্গে পিষে ঘা এর স্থানে লাগান কমে যাবে৷
* শরীরের কোন অংশ যদি পুড়ে যায় তাহলে তুলসীর রস এবং নারকেলের তেল ফেটিয়ে লাগান এতে জ্বালা কমবে৷ পোড়া জায়গাটা তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে৷ সেখানে কোন দাগ থাকবে না৷
* ত্বকের চমক বাড়ানোর জন্য এছাড়া ত্বকের বলীরেখা এবং ব্রোনো দূর করার জন্য তুলসী পাতা পিষে মুখে লাগান৷
* বুদ্ধি এবং স্মরণ শক্তি বাড়ানোর জন্য প্রতিদিন 5-7 টা তুলসী পাতা চিবান৷
* প্রস্রাবে জ্বালা হলে তুলসী পাতার রস 250 গ্রাম দুধ এবং 150 গ্রাম জলের মধ্যে মিশিয়ে পান করুন৷ উপকার পাবেন৷
* ত্বকের সমস্যা দূর করতে তিল তেলের মধ্যে তুলসী পাতা ফেলে হালকা গরম করে ত্বকে লাগান৷

তবে আপনি কি জানেন ভেষজ ওষুধ তুলসী আর পুদিনা ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে পারে৷ কিছুদিন আগে গবেষকরা তাদের রিসার্চে এই তথ্যটাই আবিষ্কার করলেন৷
রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয়ের 10 জন ছাত্র তুলসী আর পুদিনার চারাগাছ নিয়ে গবেষণা করেন৷ তাঁরা ইঁদুরের উপর পরীক্ষা চালান৷ প্রথমে তারা ইঁদুর গুলোকে দুটো ভাগে ভাগ করে একটা অংশের শরীরের ক্ষতের উপর রাসায়নিক প্রলেপ লাগান৷ আর একটা অংশের উপর তুলসী আর পুদিনার নির্যাস থেকে তৈরী প্রলেপ লাগান৷ এক মাস পরে দেখা যায় যে সব ইঁদুরের উপর তুলসী আর পুদিনার প্রলেপ লাগানো হয় নি তাদের শরীরে আরও অনেক গভীর ক্ষত তৈরী হয়৷
আর যাদের শরীরে তুলসী আর পুদিনার প্রলেপ লাগানো হয়েছিল 11 মাস বাদে তাদের শরীরে ঐ ক্ষত তৈরী হয়৷ এতেই প্রমাণিত হয় যে সব ইঁদুরের শরীরে তুলসী আর পুদিনার প্রলেপ লাগানো হয়েছিল তাদের ক্যান্সার প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে গেছে৷ ত্বকের উপর পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানোর পর ইঁদুরের ফুসফুস আর ইনটেনস্টাইন নিয়ে গবেষণা চালান তারা৷ সবেতেই ধরা পড়ে তুলসী আর পুদিনার ক্যান্সার প্রতিরোধের ক্ষমতা রয়েছে৷ ক্যান্সার নিরাময় করা যায় না এই ধারনায় একেবারেই ভ্রান্ত৷ আয়ুর্বেদও ক্যান্সার নিরাময়ে সহায়ক হয়েছে৷

Related Post



0 comments:

Post a Comment

Bangla Help

Sponsor